অধিকাংশ বাঙালি চায় একটা ভালো চাকরি ব্যবসা নয়, এর কারণ কী?

বাঙালীরা সবাই হয় সরকারি চাকরি চায় নয়তো ডাক্তার বা ইঞ্জিনিয়ার হতে চায়। এর কারন বাঙালী সমাজ এর বাইরে কোনো কাজ কেই বাবুয়ানা বলে মনে করেন না। তার কারন দুটো। প্রধান কারন হল অধিকাংশ বাঙালীরা অলস প্রকৃতির, শারীরিক পরিশ্রম হয় এমন কাজ করতে চায়না, বাঙালীরা মেয়েদের স্বাবলম্বী করার কথা না ভেবে প্রচুর যৌতিক দিয়ে বিয়ে দেয় এমন পরিবারে যারা যথেষ্ট উপার্জন করে, বাড়িতে কাজের লোক আছে অর্থাৎ মেয়েকে কাজ করতে হবেনা, সারাজীবনে একটা পয়সা উপার্জন না করেও পায়ের উপর পা তুলে খেতে পারে।

ব্যবসা বা অন্য পেশায় বড়লোক হলেও বাঙালীরা সে পরিবারে মেয়ের বিয়ে দিতে চান না কারন ব্যাবসায়িক পরিবার গুলো সাধারনত একান্নবর্তী পরিবার হয় এবং তারা সবাই কাজ করে খায়। আর প্রতিটা বাঙালী পুরুষের কেই বিয়ে করার জন্য চাকরি পাওয়ার চেষ্টা করতে হয়। অন্য যে কাজজ ই করুক তার কোনো দাম নেয়।

বাঙালী ছেলেদের প্রতিভা থাকলেও কেও গবেষক বা উদ্যোক্তা হতে চায়না কারন তাহলে সে জীবনসঙ্গী পাবেনা। কিছুটা হাস্যকর হলেও এটায় বাস্তব। এমন কোনো বাঙালী মেয়ে নেই যারা ব্যবসা বা ওই জাতীয় ঝুকিপুর্ন পেশার পুরুষ কে বিয়ে করবে বা নিজেরাও ঝুকি নিতে প্রস্তুত। বাঙালীরা চাকরি চায় কারন তাহলে সারাজীবন নিশ্চিন্ত। উপার্জনের জন্য শরীর মাথা কিছুই খাটাতে হয়না সেভাবে।
নিচে আরও কয়েকটি কারণ দিলাম
১। ব্যবসা মানেই ঝুঁকি,ধৈর্য আর পরিশ্রম । আর যেহেতু আমরা জাতিগত ভাবে ছা-পোষা তাই আমরা অধিকাংশই এই ঝুঁকি নিতে রাজি নই।
২। অল্প দিনেই শর্টকাটে জিরো থেকে হিরো হওয়ার একটা ফ্যান্টাসি আমাদের মাথায় কাজ করে। এজন্যই দেখবেন বাংলাদেশে সিভিল সার্ভিসে জয়েন করার খুব ডিমান্ড৷ মাত্র তিনটা পরীক্ষা উৎরাতে পারলেই আপনি গরীব ঘরের সন্তান থেকে একলাফে দেশের প্রথম শ্রেণীর একজন আমলা ! ব্রিটিশদের রেখে যাওয়া টোপ এখনো গিলছি।
৩। বাংলাদেশে যাদের ব্যবসা করার ব্রেইন আছে তারা ব্যবসা করেন না। যারা ব্যবসা করেন তারা আবার অল্পদিনের মধ্যে মার্ক জুকারবার্গ হতে গিয়ে পুরো ব্যবসার বারোটা বাজান।যেমন ঢাকায় দেখবেন যখন কোনো নতুন রেস্টুরেন্ট চালু হয় তখন প্রথম প্রথম তাদের খাবারের স্বাদ,দাম এবং স্টাফ দের আচরণ তথা সর্বোপরি মান খুব ভালো থাকে। তারপর যেই না একটু জনপ্রিয়তা পায় ওমনি খাবারের দাম টা দেয় বাড়িয়ে, খাবারের স্বাদ হয়ে যায় জঘন্য আর স্টাফ দের আচরণ দেখলে মনে হয় যেন আমরা ওদের দয়ায় যা খেতে পাচ্ছি তাতেই শোকর করা উচিত। ফলাফলে অচিরেই ব্যবসায় মার খায়৷ কাস্টমারের সন্তুষ্টিই যে সবচেয়ে বড় বিজ্ঞাপণ এই জিনিস্টাই বাঙালি বোঝে না।
এই মার খাওয়া ব্যবসায়ীদের দেখে অনেকে আবার ব্যবসার আগ্রহ টাই হারিয়ে ফেলেন। শুধু খাবার না, প্রত্যেকটা সেক্টরেই আজ এই অবস্থা।
৪। অন্যান্য দেশে শিক্ষিত গ্রাজুয়েটদের স্টার্টআপ বিজনেসের জন্য লোনের ভালো ব্যবস্থা আছে যেটা বাংলাদেশে নেই৷
৫। যদি আপনি ব্যবসা করতে চান তাহলে আপনাকে কোন না কোনভাবে রাজনৈতিক ব্যাকআপ রাখতে হবে। তবে আগের চেয়ে এই ব্যাপারে পরিস্থিতির অনেক উন্নতি হয়েছে বলতে হবে।
৬। মাঝারী এবং ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের সমাজে কিছুটা অবজ্ঞা করা হয়। বিয়ে করতে গেলে দেখবেন ব্যবসায়ী শুনলে একটু ভ্রু কুঁচকায়। একজন সরকারি কর্মকর্তা কে যতটা তোয়াজ করে কথা বলবে আপনাকে তার ১০ ভাগের ৫ ভাগ ও দিবে না। এই সব বর্ণবাদের কারণেও অনেকে ব্যবসা করতে আগ্রহী নয়।

Livereportbd

Latest growing bangla news portal titled Livereportbd offers to know Sports, Entertainment, Education, Lifestyle, National, World, etc.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *