আজকের দিনে সোশ্যাল মিডিয়ার গুরুত্ব

আজকের দিনে সোশ্যাল মিডিয়ার গুরুত্ব তো অস্বীকার করা যায় না। সোশ্যাল মিডিয়া আমাদের বিভিন্ন ভাবে সাহায্য করছে। কিন্তু এই ব্যাপারটার ভাল খারাপ দুইদিকই তো আছে। আমরা কিভাবে তা কাজে লাগাব তা আমাদের ওপর। কেউ কেউ এই সোশ্যাল মিডিয়ার জোরে অনেক এগিয়ে যান কিন্তু কেউ কেউ অহেতুক সমস্যাও ডেকে আনেন কোনো সময়। তবে আমার মতে বুদ্ধি করে ব্যবহার করতে পারলে সোশ্যাল মিডিয়া অনেক গুরুত্বপূর্ণ। যেমন

  • আজকাল অনেকে দেখেছি বাড়িতে নিজে নিজেই ছোট ছোট ব্যাবসা শুরু করেছেন। আমার চেনা এরকম দুইজন মেয়ে আছে। কেউ নিজের হাতে গলার হার, কানের দুল এসব বানায়, কেউ কেক বানায়, তারপর ওটার ছবি তুলে দিয়ে দিল ফেসবুকে। ওইটা দেখে অনেক ক্রেতা এগিয়ে আসেন, এবং সেই ব্যবসা এরকমই বৃদ্ধি পেতে থাকে। এখানে সোশ্যাল মিডিয়া থাকায় তারা তাড়াতাড়ি ব্যবসা এগিয়ে নিয়ে যেতে পারছে।
  • সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আমাদের পারিপার্শ্বিক সমাজ, রাজনীতি, খেলা, ইত্যাদির ব্যাপারে আমরা খবর পেয়ে যাই। অবশ্যই ভুয়ো খবর আসে অনেক, কিন্তু সাবধানে চললে আমাদের ক্ষতি হবেনা।
  • খুব সহজে নিজের মতামত প্রকাশ করতে পারছি আমরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেক নির্দিষ্ট পেজ থাকে যেখানে কেউ নিজের লেখা প্রকাশ করে থাকে, কিছু পেজ থাকে যেগুলো আমাদের পড়াশোনা ও পরীক্ষা সংক্রান্ত ব্যাপারে অনেক সাহায্য করে। সোশ্যাল মিডিয়া না থাকলে হয়তো ব্যাপারটা এত সহজ হত না সবার কাছে।
  • অনেক দূরে থাকা বন্ধু, আত্মীয়দের সাথে সোশ্যাল মিডিয়ায় যুক্ত হতে পারছি, তাতে সম্পর্ক থাকছে তাদের সাথে। সবসময় তো ফোনে কথা হয়না সবার সাথে, তবে কে কোথায় আছে সেটা অন্তত জানতে পারি।

কিন্তু আমরা অনেক সময়ে সোশ্যাল মিডিয়াকে অতিরিক্ত গুরুত্ব দিয়ে নিজের মনে অশান্তি ডেকে আনি। এই যেমন ধরুন আপনি কোনও ছবি দিলেন সোশ্যাল মিডিয়াতে, কিন্তু আপনার নির্দিষ্ট কোনও প্রিয় বন্ধু সেটাতে কোনও লাইক বা কমেন্ট দিল না। এই নিয়ে অনেক মানুষকে দেখেছি আমি পুরো বিষণ্ণ হয়ে যেতে, সারাদিন শুধু এটাই ভাববে যে অমুক আমার ছবিতে লাইক দিল না, অমুক আমাকে ফলো করল না, তার মানে সে আমাকে পছন্দ করে না, ইত্যাদি। একবার আমার পরিচিত একটা মেয়ে মেয়েদের শ্লীলতাহানির ওপর কিছু কথা লিখেছিল। সে তার মনের অনুভূতি লিখেছে, কিছু খারাপ বা অসম্মানজনক লেখেনি। ওমনি কিছু মানুষ নানান কথা বলে তাকে অকথ্য ভাষায় গালি দিল।

আচ্ছা বলুন, এই লাইক, ফলো, কমেন্ট, এইগুলো হচ্ছে একটি মাত্র আঙুলের স্পর্শে। কে সেই স্পর্শ করলো, কে করল না, তাতে কি খুব সমস্যা? জীবনে আসল সমস্যা এটা নয়। কারোর বাবা/মা অসুস্থ এটা হচ্ছে সমস্যা, কারো পরীক্ষা ভাল হল না এটা হচ্ছে সমস্যা, কেউ কোনও প্রিয়জন হারালেন এটা সমস্যা, কেউ খেতে পায় না, মাথার ওপর ছাত পায় না এটা আসল সমস্যা। গুরুত্বেরও একটা সীমা পরিসীমা থাকা উচিত।

Livereportbd

Latest growing bangla news portal titled Livereportbd offers to know Sports, Entertainment, Education, Lifestyle, National, World, etc.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *