কী নিয়ম মেনে চললে স্বামী ও স্ত্রীর মধ্যে সম্পর্ক ভালো থাকে?

আমার বৈবাহিক জীবন এর অভিজ্ঞতা এই মুহূর্তে তিন মাস। তবে বিয়ের আগে আমরা ১০ বছর চুটিয়ে প্রেম করেছি। অনেকে আমাদের কাছে জানতে চেয়েছেন এত বছর এক জন এর সঙ্গে কিভাবে থাকা সম্ভব। আমরা আমাদের অভিজ্ঞতা থেকে যে জিনিস গুলো উপলব্ধি করেছি সেগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরছি –

  • কথা – কাউকে দেখে ভালো লাগলেও সেই আকর্ষণ সাময়িক। মানুষটির সাথে যদি আপনি কথাবার্তা বলার বিষয় না খুঁজে পান তাহলে সেই সম্পর্ক বেশিদিন স্থায়ী হয় না। শারীরিক আকর্ষণ ক্ষণস্থায়ী। মনের মিল হওয়ার জন্য একে অপরকে ভালো করে চেনার জন্য এবং ভবিষ্যতে এক সঙ্গে বসবাস করার ইচ্ছে থাকলে স্বামী/স্ত্রীর একে অপরের সাথে কথোপকথন এ স্বচ্ছন্দ হওয়া উচিত।
  • সম্মান – পরস্পরের প্রতি এবং একে অপরের পরিবারের প্রতি। বিয়ে এমনই এক সামাজিক প্রতিষ্ঠান যেখানে আপনি শুধুমাত্র আপনার জীবনসঙ্গীকেই আপন করছেন না বরং তার পরিবার এর সাথেও আপনার সম্পর্ক তৈরি হচ্ছে। শুধুমাত্র মেয়েদেরই শ্বশুর শাশুড়ি কে দেখতে হবে ছেলেদের ক্ষেত্রে তা প্রযোজ্য নয় এমনটা হওয়া উচিত নয়। এত বছর আমরা একে অপরের সাথে আছি এছাড়া আমাদের বাবারা ছোটবেলার বন্ধু হবার ফলে অনেক আগেই সম্মান এর জায়গাটা তৈরি হয়ে ছিল।
  • সময় – আমরা দুজনেই চাকরি করি এবং দুজনেরই বাড়ি ফিরতে যথেষ্ট দেরি হয়। তার ওপর একে অপরের বাবা মাকেও সময় দেওয়ার দায়িত্ব থাকে। এই সব কিছুর পর একটা সময় থাকে যা কেবল আমাদের একান্ত ব্যক্তিগত।এই সময়ে আমরা গেম অফ থ্রোনস দেখা থেকে শুরু করে প্লেস্টেশন এ গেম খেলা, একে অপরের পুরো দিন কেমন কাটলো,অফিসের চাপ, ভবিষ্যতের বেড়ানোর প্ল্যান সবই করি।
  • বিশ্বাস – এটি সব চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। জীবন আমাদের নানা ভাবে পরীক্ষা নিতে চাইবে, অনেক রকম ভাবে প্রলুব্ধ করতে চাইবে, কিন্তু আপনাকে মনে রাখতে হবে যে আপনার ওপর একজন নিজের বিশ্বাস সমর্পন করেছেন এবং তার যথাযথ মর্যাদা দেওয়ার দায়িত্ব শুধুমাত্র আপনারই।

মনোমালিন্য , অভিমান ইত্যাদি তো জীবনের পরীক্ষা মাত্র। এর মেঘ কেটে যাবে । নিজের ওপর এবং সম্পর্কের ওপর আস্থা থাকলেই সেটি দীর্ঘস্থায়ী হবে।

Livereportbd

Latest growing bangla news portal titled Livereportbd offers to know Sports, Entertainment, Education, Lifestyle, National, World, etc.

One thought on “কী নিয়ম মেনে চললে স্বামী ও স্ত্রীর মধ্যে সম্পর্ক ভালো থাকে?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *