ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কিত পূর্ণাঙ্গ ধারণা !

✔ফ্রিল্যান্সিং কি?

অনেকেই মনে করেন ফ্রিল্যান্সিং মানে একপ্রকার জব কিন্তু আসলে তা না। ফ্রিল্যান্সিং হচ্ছে মুক্তভাবে জবের একটি মাধ্যম। ইচ্ছা হলে কাজ করবো, ইচ্ছা না হলে করবোনা, বিষয়টা অনেকটাই এরকম। মনে করুন, আপনি গ্রাফিক ডিজাইনের কাজ খুব ভালো করেন। কিন্তু আপনি চাচ্ছেন না কোনো একটি কোম্পানীতে ধরাবাঁধা সময়ের জব করতে। তাহলে আপনি বেছে নিতে পারেন মুক্তভাবে কাজ করার মাধ্যম ফ্রিল্যান্সিং। তেমনি একজন ফটোগ্রাফার অধিকাংশ সময়েই ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কাজ করেন। তার যখন ভালো লাগে এবং ভালো সুযোগ পান তখন তিনি কাজ করতে যান। আবার একজন গায়ক চাইলে ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কাজ করতে পারেন। কারন অধিকাংশ ক্ষেত্রেই তাদের কোনো ধরাবাঁধা সময় নেই। ভালো লাগলে গান গেতে যান, ভালো না লাগলে যান না। ফ্রিল্যান্সিং এর সবচেয়ে মজার বিষয়ই এটা যে আপনি চাইলে আপনার ইচ্ছা মতো সময়ে কাজ করতে পারেন, কাজের প্রেশার বেশি হলে কাজ না করেও থাকতে পারেন।

✔ফ্রিল্যান্সিং এবং আউটসোর্সিং এর মধ্যে পার্থক্য

ফ্রিল্যান্সিং এবং আউটসোর্সিং নিয়ে সব সময়ই একটি ভুল ধারনা রয়ে যায়। অনেকেই মনে করেন ফ্রিল্যান্সিং এবং আউটসোর্সিং এর মধ্যে কোনো পার্থক্য নেই। আসুন একটি উদাহরনের মাধ্যমে খুব সহজেই এ বিষয় সম্পর্কে একটি পরিষ্কার ধারণা নিয়ে নেই। মনে করুন, আপনি একজন দক্ষ গ্রাফিক ডিজাইনার। এখন আপনি বাংলাদেশে বসেই অনলাইন মার্কেটপ্লেসে একটি লোগো ডিজাইনের জব অফার দেখে সেখানে কাজের জন্য আবেদন করলেন। সেই জবের জন্য বিভিন্ন দেশ থেকে আপনার মতো আরো ১৫/২০ জন্য আবেদন করলো। আপনার দক্ষতা এবং আবেদন করার কৌশল ভালো হওয়ায় আপনি ৮০ ডলারে কাজটি পেয়ে গেলেন। যথাসময়ে কাজটি সম্পন্ন করে অনলাইনের মাধ্যমেই আপনার ক্লায়েন্ট এর কাছ থেকে পেমেন্টও পেয়ে গেলেন। এই যে আপনি নিজে খুজে, নিজের দক্ষতায় কাজ পেয়ে এবং শেষ করে পেমেন্ট পেলেন, এই উপায়টি হচ্ছেন ফ্রিল্যান্সিং। আর আপনার যে ক্লায়েন্ট জব অফার করেছিলো এবং আপনাকে দিয়ে কাজটি করিয়ে নিলো, তার উপায়টি হচ্ছে আউটসোর্সিং। তাই আশা করি ফ্রিল্যান্সিং এবং আউটসোর্সিং এর মধ্যে যে পার্থক্য রয়েছে, সেটি বুঝতে আর ভুল হবে না।

✔ভালো লাগা নাকি শুধুই অর্থ উপার্জন?

এখন আশা যাক ফ্রিল্যান্সিং কি আপনি ভালো লাগা থেকে করবেন নাকি শুধু অর্থ উপার্জনের জন্য করবেন। যদি আপনি ফ্রিল্যান্সিং কি এবং কিভাবে করে এটা বুঝে থাকেন, তাহলে আশা করতেই পারি আপনি ভালোভাবে বুঝে যাবেন কোন কারনে ফ্রিল্যান্সিং করা উচিত। সোজা বাংলায় বললে, ভালো লাগা থেকে যে কাজ করা হয়, সেখানে সাফল্য অবধারিত। যদি সাফল্য নাও আসে, সেখান থেকে আপনি এমন কিছু শিখবেন যা আপনাকে আরো বড় হতে সাহায্য করবে।

গবেষণালব্ধ জ্ঞান থেকে আমরা বলতে পারি, ফ্রিল্যান্সিং অবশ্যই ভালো লাগা থেকে করা উচিত। আগে আপনাকে জানতে হবে আপনার এমন কি স্কিল আছে যা আপনি অন্যকে শেখাতে পারেন অথবা আপনার স্কিল এর মাধ্যমে অন্য একজন উপকৃত হবে। কারো দ্বারা মোটিভেটেড হয়ে বা অন্য কারো আয় দেখে কখনোই আপনার কাজের সেক্টর ঠিক করা উচিত হবে না। এমন হতে পারে আপনি বিভিন্ন ফন্টে অনেক সুন্দর হাতে লিখতে পারেন। সেক্ষত্রে আপনার চেষ্ঠা এবং কাজের সঠিক উপায় জানা থাকলে আপনি আপনার এই স্কিল এর মাধ্যমে উপার্জন করতে পারেন। আপনি ভালো শিশ বাজাতে পারেন, চাইলে আপনার বাজানো “শিশ” রেকর্ড করে সার্ভিস দিতে পারেন। আপনার হয়তো কন্টেন্ট রাইটিং অনেক ভালো, হয়তোবা আপনি ভালো গিটার বাজাতে পারেন। মোট কথা, যদি আপনি কাজের সঠিক উপায় জানেন এবং আপনার যোগাযোগ দক্ষতা ভালো হয়, তবে আপনি যেকোনো স্কিল কাজে লাগিয়ে ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে কাজ করতে পারবেন। তবে বর্তমানে বাংলাদেশের গ্রাফিক ডিজাইনার, ওয়েব ডিজাইন এবং ডেভেলপার, ডিজিটাল মার্কেটিং সহ বিভিন্ন স্কিল নিয়ে প্রায় ২০ লাখের বেশি মানুষ ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে কাজ করছেন বা কাজের চেষ্টা করছেন।

এই ২০ লক্ষ মানুষই কি নিজের ভালো লাগা থেকে ফ্রিল্যান্সিং করছেন? না। যদি তাই করতেন তাহলে প্রায় ১৫ লাখের মতো আনস্কিলড ফ্রিল্যান্সার মার্কেটপ্লেসে থাকতো না। অনেকেই ভাবেন ফ্রিল্যান্সিং মানেই অল্প পরিশ্রমে বেশি উপার্জন করার একটি শর্টকাট উপায়। তাই তারা মার্কেটপ্লেসে প্রবেশ করার পর যখন কোনো কাজ পান না, তখনি নানা রকম অসুদপায় অবলম্বন করার চেষ্টা করেন। যার ফলাফল হয় ভয়াবহ। তারা নিজেদেরতো ক্ষতি করেনই, তাদের কারনে দক্ষ ফ্রিল্যান্সাররা কাজ পেতে সমস্যায় পড়েন, কাজের যথাযথ পেমেন্ট এর থেকে কম পান। এমনকি যে সকল দেশের মানুষজন মার্কেটপ্লেসে বেশি অসুদপায় অবলম্বন করেন, সে সকল দেশের ফ্রিল্যান্সারদের উপর মার্কেটপ্লেসের কড়া নজরদারি থাকে। এতো সমস্যা হওয়ার সূত্রপাত সেইসকল শর্টকাট ফ্রিল্যান্সাররা।

সবশেষে এতটুকুই বলবো, শর্টকাট উপায়ে অর্থ উপার্জনের পিছনে না ছুটে পরিশ্রম করুন। নিজের দক্ষতা বৃদ্ধি করুন। টার্গেট করুন এমন, “আমি অর্থের পিছনে ছুটবো না, অর্থই আমার পিছনে ছুটবে”। যদি এমন মানষিকতা গড়ে তুলতে পারেন, তবেই আপনি নিজেকে একজন সফল ফ্রিল্যান্সার হিসেবে গড়ে তুলতে পারবেন।

Livereportbd

Latest growing bangla news portal titled Livereportbd offers to know Sports, Entertainment, Education, Lifestyle, National, World, etc.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *